Bangla24.Net

শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ , ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

ভারতে নতুন করে চোখ রাঙাচ্ছে করোনা

ভারতে নতুন করে প্রতিদিন বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার এ নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে। ২৪ ঘণ্টায় ভারতজুড়ে প্রায় সাড়ে আটশ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন, যা ২২৭ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। এছাড়া একদিনে মারাও গেছেন ৩ জন।

ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের বরাত দিয়ে রোববার (৩১ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটিতে একদিনে ৮৪১ জন করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এর আগের দিন প্রায় সাড়ে সাতশ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। এতে এখন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৩০৯ জনে।

এদিকে করোনার ওমিক্রন স্ট্রেইনের যে উপধরন নতুন করে উদ্বেগ বাড়িয়েছে বিশ্বজুড়ে, সেই জেএন.১ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ভারতেও বাড়ছে। ভাইরাসের নতুন এই সাব-ভ্যারিয়েন্ট ইতোমধ্যে দেশজুড়ে ১৬০ জনের বেশি রোগীর দেহে পাওয়া গেছে। শুধু ডিসেম্বর মাসে ১৪৩ জনের শরীরে এই উপধরন মিলেছে।

অবশ্য গত একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও কমেছে মৃতের সংখ্যা। ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। কেরালা, কর্নাটক ও বিহারে একজন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত সব মিলিয়ে করোনায় ভারতে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৩৬১ জনের।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম বলছে, ভাইরাসের নতুন উপধরন জেএন.১ ভারতে উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই সাব-ভ্যারিয়েন্টের জেরে বিশ্বজুড়ে দেখা দিতে পারে হৃদরোগের মহামারি! হতে পারে স্ট্রোকও! নতুন জাপানি গবেষণায় এমন দাবি করা হয়েছে।

জাপানের শীর্ষস্থানীয় গবেষণা সংস্থা রিকেন নতুন রিপোর্ট প্রকাশ করে সতর্কতা জারি করেছে। সেই রিপোর্টে বলা হয়েছে, মানবদেহের কোষে করোনাভাইরাস জেঁকে বসলে হৃদযন্ত্রের ওপরে প্রভাব ফেলতে থাকে।

ফলে যারাই এই অসুখে ভুগেছেন, তাদের সকলেরই হৃদযন্ত্রে সমস্যা দেখা দেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে এতে দাবি করা হয়েছে।

শেয়ার