Bangla24.Net

বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিলেটের ১৯ আসনে আ. লীগের মনোনয়ন চান ১৪৮ জন

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট বিভাগের চার জেলার ১৯টি আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে  দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন ১৪৮ জন। মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্য, বর্তমান ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান, প্রবাসী থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরাও আছেন। রয়েছেন বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃত্বস্থানীয়রাও।

সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার ১৯টি আসনের মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ১৬ প্রার্থী জয়ী হয়েছিলেন। বাকি তিনটি আসনের মধ্যে সিলেট-২ (ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথ) থেকে গণফোরামের মোকাব্বির খান, সুনামগঞ্জ-৪ (সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) থেকে জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমান এবং মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) থেকে গণফোরামের সুলতান মোহাম্মদ মনসুর নির্বাচিত হয়েছিলেন।

আওয়ামী লীগের দলীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, সিলেট বিভাগে আওয়ামী লীগের ১৪৮ জন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। তাদের অন্তত অর্ধেক দলের শীর্ষ নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ও ভবিষ্যতের পথ সহজ করতে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। বাকিরা মনোনয়ন পাওয়ার লড়াইয়ে আছেন। কিছু কিছু আসনে বর্তমান সংসদ সদস্যদের চিন্তা বাড়িয়েছেন এসব আগ্রহী প্রার্থীরা।

আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে দুজন নেতা দুটি করে আসনে দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এদের মধ্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সিলেট-১ ও সিলেট-৩ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী। অন্যদিকে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি সুব্রত পুরকায়স্থ মৌলভীবাজার-৩ (সদর ও রাজনগর) ও মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ) আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী।

তাদের সমর্থকেরা জানান, দুটো আসনেই তাদের পরিচিতি রয়েছে। তাই যেকোনো একটি আসনে তারা মনোনয়ন পাওয়ার আগ্রহ থেকেই দুটো আসনে মনোনয়নফরম জমা দেন।

এদিকে মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনের বর্তমান এমপি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনিসহ মোট তিনজন এ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে ফরম জমা দেন। অন্য দুজন হচ্ছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তিনবারের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন।

গত সংসদ নির্বাচনে জয় পাওয়া আওয়ামী লীগের ১৬ প্রার্থীর মধ্যে ২০২১ সালের মার্চে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা, বালাগঞ্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী মারা যান। পরে উপনির্বাচনে এখানে জয়ী হন আওয়ামী লীগ-দলীয় প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব। এবার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ ও কানাইঘাট) আসনের সংসদ সদস্য হাফিজ আহমদ মজুমদার ছাড়া আওয়ামী লীগের বাকি ১৫ জন সংসদ সদস্য দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

শেয়ার