Bangla24.Net

বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত সিলেটের আরও পাঁচ উপজেলা

সিলেট জেলার আরও পাঁচ উপজেলাকে ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ঘোষণা দেন। এ নিয়ে সিলেট জেলায় মোট ৯ উপজেলা ভূমি ও গৃহহীনমুক্ত হল। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বুধবার (৯ আগস্ট) আনুষ্ঠানিকভাবে সিলেটের আরও ৫৯৭ পরিবারকে ঘর বুঝিয়ে দেয়ার অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশের একজন মানুষও যাতে ভূমি ও গৃহহীন না থাকেন সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে আজ বুধবার চতুর্থ পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে সিলেট বিভাগে ২ হাজার ২৮৭ ভূমি ও গৃহহীন পরিবার পায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার। যাদের মধ্যে শুধু সিলেট জেলায় পায় ৫৯৭ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার।

সিলেট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় চতুর্থ পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে সারাদেশে ২২ হাজার ১০১ জন ভূমি ও গৃহহীন পান প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। এর মধ্যে সিলেট বিভাগের ৪ জেলায় ২ হাজার ২৮৭টি ঘর দেয়া হয়। আর সিলেট জেলায় দেওয়া হয় ৫৯৭টি ঘর।

আজ বুধবার এসব ঘর হস্তান্তর করা হয়। সিলেটে ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আজ সকালে ঘর হস্তান্তরের উদ্বোধন করেন।

আজ ৪র্থ পর্যায়ের ২য় ধাপে সিলেট জেলায় ৫৯৭ টি ‘ক’ শ্রেণির ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর প্রদান করা হয়। এর মধ্যে সিলেট সদর উপজেলায় ১৭৫, বালাগঞ্জে ৪৬, বিয়ানীবাজারে ১৮, বিশ্বনাথে ৭১, কোম্পানীগঞ্জে ১৫, গোলাপগঞ্জে ৮৮, জকিগঞ্জে ৩০ এবং ওসমানীনগর উপজেলায় ৩০টি ঘর দেয়া হল।

চতুর্থ পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে ঘর দেয়ার মাধ্যমে জেলার গোলাপগঞ্জ, বিয়ানীবাজার, গোয়াইনঘাট, জকিগঞ্জ ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় কোনো ভূমি ও গৃহহীন রইলো না। তাই এসব উপজেলাকে আজ বুধবার ‘ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত’ ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ, কানাইঘাট, জৈন্তাপুর উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত’ ঘোষণা করা হয়।

এর আগের চার পর্যায়ে সিলেটে ৪,৯৬২ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর প্রদান করা হয়। আর আজ বুধবার চতুর্থ পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে আরও ৫৯৭ টি ঘর প্রদানের মাধ্যমে জেলায় মোট ৫,৫৫৯ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেয়ার