Bangla24.Net

বৃহস্পতিবার, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গুর ভয়াবহতা ঠেকাতে পাঁচ নির্দেশনা

রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। চলতি বছরে ডেঙ্গুতে ১০০ জনের মৃত্যু এবং আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৯ হাজার ৪৫৪ জন। এর মধ্যে চলতি মাসের প্রথম ১৫ দিনেই ৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছেন। হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১১ হাজার ৪৭৬ জন। তাই ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব ভয়াবহ আকারে বৃদ্ধি পাওয়ায় পাঁচটি সচেতনতামূলক বার্তা দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব ডা. মো. শিব্বির আহমেদ ওসমানী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে রোববার (১৬ জুলাই) দুপুরে এ বার্তা দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘দেশজুড়ে এডিস মশার বিস্তার ব্যাপকভাবে বেড়েছে। সাম্প্রতিককালে ডেঙ্গুরোগী আক্রান্তের হার আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জনসচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে সরকারি-বেসরকারি সব সংবাদমাধ্যমে প্রচারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা আবশ্যক।’

ডেঙ্গুবিষয়ক সচেতনতামূলক বার্তাগুলো হলো

জ্বরের শুরুতে অবশ্যই নিকটস্থ স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ডেঙ্গু শনাক্তকরণ পরীক্ষাসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করতে হবে। বাসার ভেতর ও চারপাশে, নির্মাণাধীন ভবন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ ভবনের বিভিন্ন স্থানে জমে থাকা পানি অপসারণ করুন ও পরিষ্কার রাখতে হবে। দিনে অথবা রাতে ঘুমানোর সময় অবশ্যই মশারি ব্যবহার করতে হবে। ডেঙ্গু জ্বর কমে গেলে অবহেলা না করে অবশ্যই পরবর্তী জটিলতা এড়াতে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। এ বিষয়ে অবহেলা নিজের ও পরিবারের জীবন সংশয়ের কারণ হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়।

উল্লেখ্য, শনিবার ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন ১ হাজার ৬২৩ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

শেয়ার