Bangla24.Net

বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাল্লায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার সাতপাড়া বাজারে একটি দোকান কোঠা দখলকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দুই জনে দাঁড়িয়েছে।

উপজেলার কার্তিকপুর গ্রামের কাজু মিয়ার ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান (৫৫) ও একই গ্রামের কুদ্দুছ মিয়ার ছেলে হেলাল মিয়া(২৫)। আহতদের শাল্লা ও আজমিরিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ জুন) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার সাতপাড়া বাজারে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বেশ কিছুদিন ধরে উপজেলার সাতপাড়া বাজারে একটি দোকান কোঠা দখলকে কেন্দ্র করে কার্তিকপুর গ্রামের মুজিবুর রহমান ও একই গ্রামের নিকসন মিয়ার মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। মঙ্গলবার সকাল ১০ টারদিকে ওই গ্রামের মুজিবুর রহমানের সাথে প্রতিপক্ষে ইউসুফ মিয়ার মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে সাবেক ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান, হেলাল উদ্দিন পুলিশের এক এস আই আলীম উদ্দিনসহ অন্তত ২০ জন আহত হন। আহত পুলিশ সদস্যকে শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অপরদিকে, আহত সাবেক ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমানকে পাশর্^বর্তী হবিগঞ্জ জেলার আজমিরিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরহ চিকিৎস তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সন্ধ্যায় হেলাল মিয়া শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

শাল্লা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৯ রাউন্ড ফাঁকা রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। এ সংঘর্ষে জড়িত থাকার সন্ধেহে পুলিশ মুজিবুর রহমানকে আটক করেছে।

শেয়ার